আরও ১১৬ শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ করল এনটিআরসিএ

বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আরও ১১৬ জন শিক্ষকের নিয়োগ সুপারিশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

এনটিআরসিএ সদস্য (শিক্ষাতত্ত্ব ও শিক্ষামান) এ বি এম শওকত ইকবাল শাহীন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তির আওতায় ৩৮ হাজার ২৮৩ জনকে প্রাথমিকভাবে নির্বাচন করা হয়। এর মধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের ১৭ জানুয়ারির নির্দেশনা অনুযায়ী পুলিশ ভেরিফিকেশন চলমান অবস্থায়ই ৩৪ হাজার ৭৩ জন প্রার্থীকে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে। অবশিষ্ট ৪ হাজার ১৯৮ জন প্রার্থী ভিআর ফরম না পাঠানোয় তাদের ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ভিআর ফরম এনটিআরসিএ অফিসে সরাসরি অথবা রেজিস্টার্ড ডাকযোগে জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়।

এতে বলা হয়, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ১১৬ জন প্রার্থীর ভিআর ফরম এনটিআরসিএ কার্যালয়ে পাওয়া যায়। সেই ১১৬ জন প্রার্থীকে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে এবং সংশ্লিষ্ট প্রার্থী ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এসএমএস করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট প্রার্থীকে এনটিআরসিএ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে স্ব স্ব ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে সুপারিশপত্র ডাউনলোড করে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে সুপারিশপত্রে উল্লেখিত তারিখের মধ্যে যোগদান করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ৩১ জানুয়ারি তৃতীয় গণনিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বেসরকারি স্কুল-কলেজ ও মাদরাসায় নিয়োগ পেয়েছেন ৩৪ হাজার ৭৩ জন। পুলিশ ভেরিফিকেশন চলমান অবস্থায় তাদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে এ শর্তে যে সরকারি রিপোর্টে তাদের বিরুদ্ধে গুরুতর কোনো অভিযোগের প্রমাণ পাওয়া গেলে নিয়োগ বাতিল হবে। এনটিআরসিএ-র মাধ্যমে সুপারিশ পাওয়া পদের মধ্যে এমপিও পদ রয়েছে ৩০ হাজার ৯০৪টি আর নন-এমপিও পদ রয়েছে ৩ হাজার ১৬৯টি। প্রভাষক পদে নিয়োগের সুপারিশ পেয়েছেন ৬ হাজার ৫০১ জন, সহকারী শিক্ষক পদে ২৪ হাজার ৪১৮ জন, সহকারী মৌলভী পদে ১ হাজার ৫২৮ জন, ইবতেদায়ী মৌলভী পদে ৩৫৫ জন, ট্রেড ইনস্ট্রাক্টর পদে ৩৮৯ জন, ইনস্ট্রাক্টর পদে ১০০ জন, জুনিয়র ইনস্ট্রাক্টর পদে ৬ জন, প্রদর্শক পদে ১৯৪ জন, ইবতেদায়ী ক্বারী পদে ৯৩ জন এবং ইবতেদায়ী শিক্ষক পদে ৪৮৯ জন।