৩১ মার্চের মধ্যে উপবৃত্তিযোগ্যদের তথ্য অন্তর্ভুক্তির নির্দেশ

২০২১-২২ অর্থবছরে সারা দেশের স্নাতক (পাস) ও সমমানের দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দেওয়ার জন্য অনলাইনে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পূরণ করা শিক্ষার্থীর তথ্য এবং বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব নম্বরসহ সংশ্লিষ্ট তথ্য আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে ‘ই-স্টাইপেন্ড সিস্টেমে’ অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট।

সোমবার (২১ মার্চ) প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট থেকে বিষয়টি জানিয়ে সব উপজেলা ও থানা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের চিঠি পাঠানো হয়েছে।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) নাসরীন আফরোজের স্বাক্ষর করা চিঠিতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের মাধ্যমে ২০২১-২২ অর্থবছরে সারা দেশের স্নাতক (পাস) ও সমপর্যায়ের দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের উপবৃত্তি দেওয়ার লক্ষ্যে গত ৯ জানুয়ারি থেকে ১২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা অনলাইনে আবেদন করে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পূরণ করা আবেদন এবং বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব নম্বরসহ সংশ্লিষ্ট তথ্য ই-স্টাইপেন্ড সিস্টেম ব্যবহার করে ২২ মার্চের মধ্যে ট্রাস্ট অফিসে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করা হলেও এখন পর্যন্ত অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের উপবৃত্তির আবেদনগুলো ট্রাস্টে পাঠাননি। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শিক্ষার্থীদের আবেদন ট্রাস্টের সার্ভারে না পাঠালে এসব শিক্ষার্থী ২০২২ সালের উপবৃত্তি প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হবে।

জানা গেছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানরা ই-স্টাইপেন্ড সিস্টেমে (http://estipend.pmeat.gov.bd) প্রবেশ করে আগের ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে অথবা মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের ইএমআইএসের ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেও লগইন করতে পারবেন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব নম্বর যথাযথভাবে পাঠানো অতি জরুরি। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব নম্বর ই-স্টাইপেন্ড সিস্টেমে না দিলে টিউশন ফি দেওয়ার জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে টাকা বিতরণ করা সম্ভব হবে না।

তাই ২০২২ সালের সারা দেশের স্নাতক (পাস) ও সমপর্যায়ের দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পূরণ করা আবেদনগুলো ই-স্টাইপেন্ড সিস্টেম ব্যবহার করে আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে ট্রাস্ট অফিসে পাঠাতে বলা হয়েছে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের বিষয়টি প্রতিষ্ঠান প্রধানদের জানাতে বলা হয়েছে।